জলঢাকা কলেজকে সরকারীকরণে প্রধানমন্ত্রীকে অভিনন্দন জানিয়ে সভা

আবেদ আলী স্টাফ রিপোর্টারঃ   নীলফামারীর জলঢাকায় প্রাচীনতম ও ঐতিহ্যবাহী জলঢাকা ডিগ্রী কলেজকে সদ্য জাতীয়করণ করায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও স্থানীয় সংসদ সদস্য অধ্যাপক গোলাম মোস্তফাকে অভিনন্দনসহ শুভেচ্ছা জানিয়েছেন শোভাযাত্রা শেষে আলোচনা সভা করেছে শিক্ষক, ছাত্রছাত্রী, অভিভাবক  ও কর্মচারীগণ। মঙ্গলবার দুপুরে জলঢাকা কলেজ হলরুমে শিক্ষক, শিক্ষার্থী ও কর্মচারীদের আয়োজনে ওই  আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। কলেজটির শিক্ষক ও কর্মচারীরা সকালে মটরসাইকেল বহরে এমপিকে সৈয়দপুর থেকে বরণ করে জলঢাকায় নিয়ে আসেন। পরে
জলঢাকা কলেজ অধ্যক্ষ (ভারপ্রাপ্ত)  মোফাজ্জল হকের সভাপতিত্বে সভায় প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন স্থানীয় সংসদ সদস্য অধ্যাপক গোলাম মোস্তফা।
এ সময় বক্তব্য রাখেন অধ্যাপক আজিজুল ইসলাম, ম্যানেজিং কমিটির সদস্য আলহাজ্ব আশরাফ আলী, অধ্যাপক জাহেদ আলী, সহকারী অধ্যাপক আকবর আলী, হারুনার রশীদ সবুজ, প্রভাষক গজেন্দ্র নাথ বর্মন, আব্দুল মজিদ সরকার, বিএম রায়হানা প্রমূখ। সুত্র মতে জানা যায়,
রোববার দুপুরে এ প্রজ্ঞাপনটি জারি করেছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়। যেসব উপজেলায় সরকারী কলেজ নেই, সেখানে একটি করে কলেজকে জাতীয়করণের প্রতিশ্রুতি রয়েছে সরকারের। এর অংশ হিসাবে ২০১৬ সালে বেসরকারি কলেজকে জাতীয়করণের জন্য তালিকাভুক্তির কাজ শুরু হয়।
তার মধ্য থেকে যাচাই-বাছাই শেষে প্রধানমন্ত্রীর অনুমোদনের পর ২৭১টি কলেজ সরকারী হলো। এসব কলেজে বর্তমানে প্রায় ১০ হাজার শিক্ষক রয়েছে বলে একটি সুত্র জানায়। এছাড়াও জাতীয়করণ হওয়া কলেজের শিক্ষকদের মর্যাদা কি হবে তা নিয়ে গত ৩১ জুলাই একটি বিধিমালাও জারি করেছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়। এদিকে জলঢাকা উপজেলার স্বনামধন্য এই বিদ্যাপীঠ কে সরকারীকরণ করে প্রজ্ঞাপন জারি করায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে অভিনন্দন জানিয়েছেন,
ওই কলেজের শিক্ষক /শিক্ষার্থী ও অভিভাবক সহ আওয়ামীলীগ নেতা কর্মীরা।
অভিনন্দন বার্তায় তারা বলেন আওয়ালীগ সরকার এর আগে ২৬ হাজার বেসরকারি প্রাথমিক স্কুলকে সরকারীকরণ করেছে, যেসব উপজেলায় সরকারী মাধ্যমিক স্কুল নাই সেইসব উপজেলায় মাধ্যমিক স্কুল সরকারীকরণ করেছে। এরই ধারাবাহিকতায় সর্বশেষ সরকারী কলেজ বিহীন ২৭১টি উপজেলার বেসরকারি কলেজকে সরকারী করলো শিক্ষাবান্ধব সরকারের প্রধানমন্ত্রী বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা।
বিভিন্ন সামাজিক সাংস্কৃতিক সংগঠনসহ জলঢাকাবাসীর পক্ষ থেকে আরো অভিনন্দন জানান, বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ ও দিনাজপুর শিক্ষাবোর্ডের সাবেক চেয়ারম্যান প্রফেসর আহমেদ হোসেন প্রমু্খ।
জলঢাকা কলেজ সরকারিকরণ করে প্রজ্ঞাপন জারি করায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এবং নীলফামারী- ৩ আসনের সংসদ সদস্য ও শিক্ষা মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্হায়ী কমিটির সদস্য অধ্যাপক গোলাম মোস্তফাকে প্রাণঢালা অভিনন্দন জানিয়েছেন, বিভিন্ন সামাজিক সংগঠন।
প্রধানমন্ত্রীকে দেওয়া অভিনন্দন বার্তায় এই কলেজ অধ্যক্ষ (ভারপ্রাপ্ত) মোফাজ্জল হক
বলেন, উপজেলা পর্যায়ে যেখানে সরকারি কলেজ নেই এমন উপজেলায় একটি করে কলেজ সরকারিকরণের ফলে শিক্ষাক্ষেত্রে অনন্য অবদান সৃষ্টি করে প্রত্যন্ত অঞ্চলের গণমানুষের মনের আকাঙ্খা পূরণ করায় বাঙ্গালী জাতির অবিসংবাদিত নেতা, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বপ্ন পূরণে প্রধানমন্ত্রী দেশরত্ন জননেত্রী শেখ হাসিনাকে প্রতিষ্ঠানটির পক্ষ থেকে ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানাই।


মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।